চিহ্ন দেখে নেটওয়ার্ক চিনুন

বর্তমানে দেশের বেশ কয়েকটি মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান তৃতীয় প্রজন্মের (থ্রিজি) নেটওয়ার্ক-সুবিধা দেওয়া শুরু করেছে। প্রাথমিকভাবে নির্দিষ্ট কিছু এলাকায় চালু হয়েছে থ্রিজি। মোবাইলে ইন্টারনেট সংযোগ চালু থাকলে সংযোগের ধরন অনুযায়ী G, E, H, 3G ইত্যাদি চিহ্ন মোবাইল ফোনসেটের নেটওয়ার্ক চিহ্নে দেখানো হয়ে থাকে। এগুলোর মাধ্যমে ইন্টারনেটের গতি কী হবে, সেটি বুঝতে পারা যায়। কোন চিহ্ন কী বোঝাচ্ছে, তা জেনে নেওয়া যাক।

 

জিপিআরএস: জেনারেল প্যাকেট রেডিও সার্ভিস। দ্বিতীয় প্রজন্ম বা টুজি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এ ধরনের নেটওয়ার্কে যুক্ত থাকলে মোবাইলে G আইকন দেখা যায়। বর্তমানে প্রচলিত মোবাইল ইন্টারনেট-সুবিধাগুলোর মধ্যে এটি সবচেয়ে ধীরগতির।

এজ (ইডিজিই—এনহ্যান্সড ডেটা রেটস ফর জিএসএম ইভাল্যুয়েশন)। এই প্রযুক্তি কখনো কখনো এনহ্যান্সড জিপিআরএস নামেও ব্যবহূত হয়। এটি থ্রিজির পূর্ববর্তী প্রযুক্তি এবং একে জিপিআরএসের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ করা হয়েছে। এই নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি ব্যবহার করে সর্বোচ্চ ২০০ কেবিপিএস গতিতে তথ্য আদান-প্রদান করা যায়। এই নেটওয়ার্কে যুক্ত থাকলে মোবাইল ফোনে E আইকন দেখায়।

 

থ্রিজি: প্রযুক্তটি ইউএমটিএস (ইউনিভার্সাল মোবাইল টেলিকমিউনিকেশনস সিস্টেম) নামেও পরিচিত। এর মাধ্যমে ন্যূনতম ২০০ কেবিপিএস থেকে কয়েক এমবিপিএস গতিতে তথ্য আদান-প্রদান করা যায়। এই নেটওয়ার্ক 3G দিয়ে প্রকাশ করা হয়।

 

এইচএসপিএ: হাই স্পিড প্যাকেট অ্যাকসেস। থ্রিজির পরবর্তী প্রযুক্তি এটি। কখনো কখনো এটি 3.5G অথবা 3.75G আইকনেও প্রকাশ করা হয়। এই নেটওয়ার্কে যুক্ত থাকলে মোবাইলে H, H+, 3G+ ইত্যাদি আইকন দেখা যাবে। এইচএসপিএ নেটওয়ার্কে ১৬৮ এমবিপিএস গতিতে তথ্য নামানো যায়। এইচএসপিএ+ হচ্ছে এর পরের প্রযুক্তি।এতে সর্বোচ্চ ৩৩৭.৫ এমবিপিএস গতি পাওয়া সম্ভব।

 

First Published at Prothom Alo on November 22, 2013

http://www.prothom-alo.com/technology/article/79243

Advertisements