স্মার্টফোনের চার্জ ধরে রাখার ১০ উপায়

স্মার্টফোনগুলো যেন একেকটি পূর্ণাঙ্গ কম্পিউটার। এমনকি সাধারণ কম্পিউটারের চেয়েও বাড়তি কিছু পাওয়া যায় স্মার্টফোনে। কিন্তু সব ব্যবহারকারীরই প্রায় এক অভিযোগ, ব্যাটারির চার্জ বেশিক্ষণ থাকে না। আগের জমানার মোবাইল ফোনগুলোর তুলনায় স্মার্টফোনে কাজ করার সুযোগ অনেক বেশি বলে ব্যাটারিও বেশি ব্যবহূত হচ্ছে। তবে সাধারণ কিছু অভ্যাসের মাধ্যমে ব্যাটারির চার্জ বেশি সময় ধরে রাখা যায়।

পর্দার ঔজ্জ্বল্য কমিয়ে রাখা
স্মার্টফোনের পর্দার ব্রাইটনেস বা ঔজ্জ্বল্য কমিয়ে রাখা ভালো। ফোনের সেটিংস থেকে এটি পরিবর্তন করা যায়, আবার কোনো কোনো মোবাইলে ব্রাইটনেস পরিবর্তনের জন্য শর্টকাট কি-ও থাকে। কিছুদিন ব্যবহার করলেই কম আলোর পর্দার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া যায়। পাশাপাশি কিছুক্ষণ ব্যবহার না করা হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পর্দার আলো বন্ধ রাখার সুবিধাটিও চালু রাখা উচিত।

প্রয়োজন ছাড়া সব বেতার সংযোগ বন্ধ
জিপিআরএস/এজ, জিপিএস, ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথের মতো বেতার সংযোগগুলো প্রয়োজনের সময় ছাড়া বন্ধ রাখা উচিত। কারণ, এই সংযোগগুলো চালু থাকলে সেগুলো নিকটবর্তী সংযোগ উৎসটি খুঁজে বের করার চেষ্টা করতে থাকে। আর এই সময়ে যে পরিমাণ ব্যাটারি খরচ হয়, তা সেবা ব্যবহারের সময়ের চেয়েও বেশি।

পুশ নোটিফিকেশন বন্ধ রাখা
ই-মেইল, ফেসবুক, গুগল প্লাস, টুইটারসহ আরও বিভিন্ন ধরনের অ্যাপলিকেশনে ‘পুশ নোটিফিকেশন’ নামের একটি সুবিধা থাকে। যেটি চালু থাকলে মোবাইল ফোনটি একটি নির্দিষ্ট সময় পর পর সার্ভার থেকে নতুন তথ্য সংগ্রহ করে। ফলে প্রয়োজন না থাকলেও নির্দিষ্ট সময় পর পর ফোনটি নিজের মতো করে কাজ করবে, আর চার্জ খরচ হবে।

ওয়াই-ফাই ভালো
স্মার্টফোনে ইন্টারনেট ব্যবহার করার জন্য যখনই সম্ভব মোবাইল নেটওয়ার্কভিত্তিক ইন্টারনেট যেমন জিপিআরএস/এজ, থ্রিজির তুলনায় তারহীন ওয়াই-ফাই ভালো। পরীক্ষা করে দেখা গেছে, ওয়াই-ফাই ব্যবহারের সময় অন্যান্য প্রযুক্তির ইন্টারনেট ব্যবহারের চেয়ে কম ব্যাটারি খরচ হয়। বাসা, অফিস বা অন্য কোথাও ইন্টারনেট ব্যবহারর সময় সেখানে যদি ওয়াই-ফাই থাকে, তবে সেখানে যুক্ত হতে পারেন।

ব্যবহার না করলে লক করে রাখা
ব্যবহার করা না হলে ফোনটি লক করে রাখা উচিত। লক থাকা অবস্থাতেও কল এবং এসএমএস আসবে। ফোন লক করা না থাকলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে কিছু সেবা চলে এবং স্বাভাবিকবাবেই এতে ব্যাটারি খরচ হয়। আর লক করার আরও একটি সুবিধা হলো, ভুলবশত পর্দার কোথাও আঙুলের চাপ পড়ে কল চলে যাবে না বা কোনো অ্যাপ খুলবে না।

নির্দিষ্ট ধরনের অ্যাপলিকেশন
স্মার্টফোনে বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ ব্যবহার করা যায়। এগুলোর ব্যবহারের জন্য বিভিন্ন মাত্রার মেমোরি, প্রসেসিং পাওয়ার লাগে। যেমন ভিডিও দেখা বা উচ্চ মানের গ্রাফিকসের গেম খেলার জন্য যে পরিমাণে ব্যাটারি খরচ হয়, তার থেকে অনেক কম ব্যাটারি খরচ হয়, যদি নোট লেখা বা ই-বুক পড়ার অ্যাপ ব্যবহার করা হয়। আবার একাধিক অ্যাপ একই সঙ্গে ব্যবহার করা হলেও দ্রুত ব্যাটারির চার্জ শেষ হয়ে যেতে পারে। যেমন গান শোনা এবং একসঙ্গে ইন্টারনেট ব্যবহার করা।

ব্যবহারের পর অ্যাপটি বন্ধ করা
ব্যবহার শেষ হলে অ্যাপটি বন্ধ রাখা উচিত। অনেক ক্ষেত্রেই অ্যাপটি মিনিমাইজ করে রাখা হলেও নেপথ্যে প্রসেসিং চলতে থাকে। ইন্টারনেটে যুক্ত থেকে ডেটা আদান-প্রদানও করতে থাকে বেশ কিছু অ্যাপ। অথচ এই সময়ে অ্যাপটি ব্যবহূত হচ্ছে না।

ফোনটি কক্ষতাপমাত্রায় রাখা সর্বোত্তম
বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া ফোন সব সময়ই কক্ষতাপমাত্রায় ব্যবহার করা উচিত। মোবাইল ফোন কখনোই অতিরিক্ত ঠান্ডা বা গরম স্থানে ফেলে রাখা উচিত নয়। সুবিধাজনক তাপমাত্রায় না থাকলে মোবাইল ফোনের চার্জ দ্রুত শেষ হয়ে যায়, এমনকি ফোনটি স্থায়ীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। সাধারণত সব মোবাইল ফোনের জন্য সুবিধাজনক তাপমাত্রা হলো ০ থেকে ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সফটওয়্যার হালনাগাদ
মোবাইল ফোন সফটওয়্যারটির (ফার্মওয়্যার নামেও পরিচিত) সাম্প্রতিকতম সংস্করণটি ব্যবহার করা ভালো। স্মার্টফোন নির্মাতার সব সময়ই ফোনের বিভিন্ন ত্রুটি সংশোধনের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। নতুন সংস্করণগুলোতে সেই বৈশিষ্টগুলো সংযোজন করা হয়ে থাকে। সাধরণত এই হালনাগাদগুলো বিনা মূল্যে নামানোর সুযোগ পাওয়া যায়। এমনকি ফোনে ব্যবহূত সব অ্যাপের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। সাম্প্রতিকতম সংস্করণগুলোতে অনেক নতুন বৈশিষ্ট্য যোগ করা হয়ে থাকে এবং আগের ত্রুটিগুলো সংশোধন করা হয়ে থাকে, যেগুলো অ্যাপটি সঠিকভাবে ব্যবহারে সহযোগিতা করে থাকে।

অতিরিক্ত ব্যাটারি
দ্রুত চার্জ শেষ হয়ে যায় বলে অনেকেই অতিরিক্ত ব্যাটারি সঙ্গে রাখেন। যেন প্রয়োজনের সময় একটির চার্জফুরিয়ে গেলে অপরটি ব্যবহার করা যায়।
বর্তমান সময়ের সব স্মার্টফোনেই লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এই ধরনের ফোন দ্রুত চার্জ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের যন্ত্রাংশ পাওয়া যায়। আবার অনেকেই অতিরিক্ত চার্জার ব্যবহার করেন। কেউ কেউ আবার ব্যাটারির চার্জ শেষ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় কিছুক্ষণ পরপরই চার্জ করার চেষ্টা করেন। তবে জেনে রাখা ভালো, লিথিয়াম-আয়নভিত্তিক ব্যাটারিগুলোর ইলেকট্রন কিছুদিন পর পর পরিবর্তন হওয়া উত্তম। তাই মাসে অন্তত একবার ফোনের চার্জ সম্পূর্ণ শেষ হতে দিয়ে পুনরায় চার্জ করা উচিত। এতে ব্যাটারি দীর্ঘদিন ব্যবহার করা যায়।
ডিজিটাল ক্রেভ অবলম্বনে নাসির খান

Published at Prothom alo 29 March 2013 http://www.prothom-alo.com/detail/date/2013-03-29/news/340414

নতুন সফটওয়্যার অবমুক্ত করেছে গুগল

গত বছরের শেষ দিকে সার্চ ইঞ্জিন গুগল ‘নিক সফটওয়্যার’ প্রতিষ্ঠানটিকে অধিগ্রহণ করে। স্ন্যাপস্পিড নামের একটি আইফোন অ্যাপ এবং ডেস্কটপ সফটওয়্যারে ব্যবহার করা হয় এই সফটওয়্যারটি। এর পাশাপাশি শৌখিন ও পেশাদার ফটোগ্রাফারদের ব্যবহারের উপযোগী বেশ কিছু ছবি সম্পাদনার টুল তৈরি করেছে এই প্রতিষ্ঠানটি। অ্যাডবি ফটোশপ, এবং অ্যাপার্চারের সঙ্গে অতিরিক্ত হিসেবে ব্যবহার করা যায় এই সফটওয়্যারগুলো। অধিগ্রহণের সময় এই সফটওয়্যারগুলো কিংবা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আর্থিক চুক্তির বিষয়ে কিছু জানায়নি।
সম্প্রতি গুগল নিক সফটওয়্যারের ছয়টি প্লাগ-ইনসের একটি বান্ডেল প্রকাশ করেছে ১৫৯ ডলারে। এই প্লাগ-ইনগুলো ফটোশপ এবং অ্যাপার্চারে ব্যবহার করা যাবে। ‘নিক কালেকশন বাই গুগল’ নামে প্রকাশিত এই বান্ডেলটি পূর্বের তুলনায় ৭০ শতাংশ কম মূল্যে বিক্রি করা হচ্ছে। পাশাপাশি প্লাগ-ইনগুলো ১৫ দিন বিনা মূল্যে ব্যবহার করার সুযোগ দিচ্ছে গুগল। বান্ডেলে যে প্লাগ-ইনগুলো রয়েছে, সেগুলো হলো এইচডিআর ফটোগ্রাফি টুল ‘এইচডিআর ইফেক্স প্রো ২’, রঙিন ছবি সম্পাদনার জন্য ‘কালার ইফেক্স প্রো ৪’, সাদাকালো ছবি সম্পাদনা টুল ‘সিলভার ইফেক্স প্রো ২’, নির্দিষ্ট টোন নির্ধারণ এবং কালার কারেকশনের জন্য ‘ভিভেজা ২’, নয়েজ সম্পাদনার জন্য ‘সারপেনার প্রো ৩’ এবং ‘ডিফাইন২’।
গুগলের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ভিক গুন্ড্রোট্রা বলেন, গুগলের পক্ষ থেকে সব সময়ই নিক সফটওয়্যারের এই প্লাগ-ইনসগুলো প্রকাশ করা হবে। নতুন এই বান্ডেলটি প্রকাশ নিক সফটয়্যার ব্যবহারকারীদের জন্য একটি বিশেষ সুবিধা তৈরি করবে। একই সঙ্গে আরও নতুন ব্যবহারকারী এই সফটওয়্যার ব্যবহার শুরু করবে। এ ছাড়া স্ন্যাপস্পিডের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই সফটওয়্যারগুলো তৈরির ক্ষেত্রে তাদের উদ্দেশ্য ছিল সাধারণ মানুষ যেন এটি সহজেই ব্যবহার করতে পারে এবং তাদের শিল্পীসত্ত্বাকে প্রকাশ করতে পারে। অধিগ্রহণের ক্ষেত্রেও গুগল এই উদ্দেশ্যকে বিশেষ প্রাধান্য দিয়েছে। —টেকক্রাঞ্চ অবলম্বনে নাসির খান

Published on Prothom-Alo 27 March, 2013, http://www.prothom-alo.com/detail/date/2013-03-27/news/339769