গুগলে ফাইল অ্যাটাচ করার নতুন পদ্ধতি

সম্প্রতি গুগলের অনলাইন ইমেইল সেবা জিমেইলে ফাইল সংযুক্তির (অ্যাটাচমেন্ট) একটি বিশেষ পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। ইমেইলের সঙ্গে এক বা একাধিক ফাইল সংযুক্ত করার জন্য যে অপশনটি এখন ব্যবহার করা হচ্ছে, সেটি ছাড়াও এখন ‘ড্র্যাগ অ্যান্ড ড্রপ ’ (মাউস ধরে টেনে আনা) পদ্ধতিতে ফাইল যোগ করা যাবে। জিমেইলে কোনো ইমেইল লেখার সময় কম্পিউটারের যেকোনো ধরনের ফাইল টেনে (ড্র্যাগ করে) ব্রাউজার উইন্ডোতে আনলে ফাইলটি কোথায় রাখতে হবে, সেটি জানিয়ে দেবে এবং সংযুক্তি চালু করার বার্তা দেখাবে। এই পদ্ধতিতে এক বা একাধিক ফাইল একই সঙ্গে অ্যাটাচমেন্ট হিসেবে যুক্ত করা যাবে।


জিমেইলের এই সেবাটি ওয়েবসাইট দেখার সফটওয়্যার মজিলা ফায়ারফক্স ৩ .৬ এবং গুগল ক্রোম ৪.০ ও এসবের পরবর্তী সংস্করণে ব্যবহার করা যাবে। গুগলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এইচটিএমএল৫এর এই বৈশিষ্ট্যটি অন্যান্য ওয়েব ব্রাউজারে যুক্ত করার পর যত শিগগির সম্ভব, তারা সেই ব্রাউজারের জন্য সেবাটি চালু করে দেবে।
এর আগে গুগল একাধিক ফাইল একই সঙ্গে ইন্টারনেটে পাঠানোর (আপলোড) জন্য ফ্ল্যাশভিত্তিক একটি আপলোডার ব্যবহার করত। এখন থেকে ফ্ল্যাশ ইনস্টল করা নেই এমন কম্পিউটার থেকেও জিমেইলে একাধিক ফাইল যুক্ত করার কাজটি করা যাবে। তবে ফ্ল্যাশভিত্তিক আপলোডার অথবা নতুন এই সেবাটি ব্যবহার না করতে চাইলে সাধারণ ফাইল আপলোডারটি ব্যবহার করা যাবে। তবে সে ক্ষেত্রে একটি করে ফাইল যুক্ত করতে হবে।

সূত্র: http://www.prothom-alo.com/detail/date/2010-04-29/news/59751

Yoono: সামাজিক যোগাযোগের সকল ওয়েবসাইট ব্যবহার করুন একই স্থান থেকে

সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন ওয়েবসাইট সমূহ বেশ দ্রুত জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। নিয়মিত ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা তো আছেনই সেই সাথে এই ধরনের নেটওয়ার্কে যুক্ত হতে নতুন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যাও বাড়ছে। আর প্রায় প্রত্যেকেই ফেইসবুক(www.facebook.com ), টুইটার(www.twitter.com ), লিংকড ইন(www.linked.com ), ফ্লিকার(www.flickr.com ), এমএসএন, ইয়াহু, গুগলের মত একাধিক নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে বন্ধুদের সাথে যুক্ত থাকতে চেষ্টা করেন।

যে কোন আপডেট দেখা নতুন স্ট্যাটাস দেয়া নতুন বার্তা বা নোটিফিকেশন দেখার বেশ সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। সেদিক থেকে এদের ডেক্সটপ ক্লায়েন্টসমূহ এই সময় অনেকটাই বাচিয়ে দেয়। তবে একাধিক নেটওয়ার্কের ডেক্সটপ ক্লায়েন্ট বিস্তারিত পড়ুন

ইন্টারনেটের মাধ্যমে অন্য কম্পিউটারের ফাইল সম্পাদনা ও স্থানান্তর করা

নিজের কম্পিউটারে বসেই যদি একাধিক কম্পিউটারের ফাইল দেখা, সম্পাদনা, সংরক্ষনের বা আদানপ্রদানের কাজ করতে চান তবে FeelHome(www.nuxinov.com) নামের সফটওয়্যারটি ব্যবহার করতে পারেন। এই সফটওয়্যারটি উইন্ডোজ, লিনাক্স এবং ম্যাক অপারেটিং সিস্টেমে ব্যবহার করা যায় যার ফলে অপর ব্যবহারকারীকে কোন নির্দিষ্ট অপারেটিং সিস্টেম না ব্যবহার করলেও চলবে।

ওয়েব সাইট থেকে বিনামূল্যে ডাউনলোড করার পর কম্পিউটারের কোন ফোল্ডার সমূহ শেয়ার করতে চান সেটি নির্দিষ্ট করে দিতে হবে। এর পর ওয়েব ব্রাউজার অথবা অন্য কম্পিউটার থেকে সেই নির্দিষ্ট ফোল্ডারের ফাইল সমূহ ব্যবহারের বিস্তারিত পড়ুন

পিকাসা থেকে সহজে ছবি ডাউনলোড [picasaweb.google.com]

ছবি আদানপ্রদানের একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট হলো গুগলের পিকাসা (www.picasaweb.google.com)। ছবি সম্পাদনার জন্যও পিকাসা নামে গুগলের একটি সফটওয়্যার রয়েছে। ছবি সম্পাদনার পাশাপাশিএটি ছবি ব্যবস্থাপনার কাজটিও করে।কোনো নির্দিষ্ট কম্পিউটারের সব ছবি নিয়ে এই সফটওয়্যারটি একটি ডেটাবেইস তৈরি করে ফলে হার্ডডিস্কের বিভিন্ন ড্রাইভের ছবি বা ভিডিও ফাইলগুলো সহজেই খুঁজে পাওয়া যায়। সেই সঙ্গে কোনো নির্দিষ্ট ছবি বা ফোল্ডারের সব ছবি পিকাসার অনলাইন অ্যালবামে রাখা বা প্রকাশ (আপলোড) করা যায়।
এ অনলাইন সেবাটির ব্যবহারকারীর বিস্তারিত পড়ুন

নিজেই তৈরী করুন বাংলা তারিখ কনভার্টার

১৪ তারিখে বাংলা নববর্ষ পালন করা হয়, তবে পহেলা ফাল্গুন আর পহেলা বৈশাখ ছাড়া অন্য কোন বাংলা তারিখ আমরা মনে রাখি না। ইন্টারনেটে কিছু টুল দেখলাম যেখানে গ্রেগরীয়ান ক্যালেন্ডার থেকে বাংলাতে রুপান্তর করা যায়। তবে মূল কোড পেলাম না কোথাও। নিজের দরকারে এই কোডটি লিখতে হয়েছিল । জানিয়ে দিলাম সকলকে । কেউ ভুল ধরতে পারলে জানানোর অনুরোধ করছি।

এটি দেখতে সি/সি++ এর মত মনে হলেও এটি কোন নির্দিষ্ট ভাষায় লেখা হয় নাই। তবে এটি দেখে যেকোউ যেকোন ভাষায় কোড লিখতে পারবে বলে আমার ধারনা।

বিস্তারিত পড়ুন