ম্যাসেঞ্জার থেকে ফেসবুক চ্যাট [pidgin.im]

ইন্টারনেটে তাত্ক্ষণিক বার্তা আদানপ্রদানের যে সফটওয়্যারগুলো (মেসেঞ্জার) আছে, সেসবেরই প্রায় সবগুলোর কাজই করা যাবে পিজিন (www.pidgin.im) থেকে। ইয়াহু, এমএসএন, গুগলটকের মতো জনপ্রিয় প্রায় সব মেসেঞ্জারের বিকল্প হিসেবেই এটি ব্যবহার করা যায়। পিজিনের বিশেষ সুবিধা হলো, এটিতে একই সঙ্গে একাধিক অ্যাকাউন্টে ঢুকে বার্তা আদানপ্রদান করা যায়।যেমন—ইয়াহু, গুগল বা এমএসএনের একাধিক অ্যাকাউন্ট একই সঙ্গে ব্যবহার করা যাবে এখানে। সেই সঙ্গে ব্যবহার করা যাবে ফেসবুকের চ্যাট অপশনটিও। পিজিনে এমনিতে ফেসবুক চ্যাটের সুবিধা সরাসরি না থাকলেও ছোট একটি প্রোগ্রামের (প্লাগইন) মাধ্যমে এটি ব্যবহার করা যাবে। উইন্ডোজ বা লিনাক্স দুই ধরনের অপারেটিং সিস্টেমে ইনস্টল করা যাবে এই প্রোগ্রামটি।
এটি পাওয়া যাবে http://code.google.com/p/pidgin-facebookchat ঠিকানার ওয়েবসাইটে।ব্যবহারকারীর কম্পিউটারের উপযোগী সংস্করণটি নামিয়ে সেটি ইনস্টল করে নিতে হবে।
ইনস্টল করার পর পিজিন চালু করতে হবে। Accounts>>Manage Accounts নির্বাচন করলে নতুন অ্যাকাউন্ট যুক্ত করার অপশন পাওয়া যাবে। সেখানে অফ বাটনটি চাপলে অ্যাকাউন্ট যোগ করার একটি উইন্ডো দেখা যাবে। এখানে অ্যাকাউন্টের ধরন, ব্যবহারকারীর নাম ও পাসওয়ার্ড লিখতে হয়। ফেসবুক চ্যাট চালু করার জন্য এই উইন্ডোতে Protocol-এর পাশে Facebook এবং Username, Password-এর স্থানে ইমেইল ঠিকানা ও পাসওয়ার্ড লিখতে হবে। মেসেঞ্জার থেকেই ফেসবুকের স্ট্যাটাস পরিবর্তন করা যাবে। Accounts থেকে Facebook অ্যাকাউন্টটিতে ক্লিক করা হলে Set Facebook status নামের অপশনটি পাওয়া যাবে।

Advertisements

5 thoughts on “ম্যাসেঞ্জার থেকে ফেসবুক চ্যাট [pidgin.im]

  1. অনেক দিন পর একটা কথা বলি, আপনি সব সময় এত সুন্দর সুন্দর ট্রিক্স, টপিক দিয়ে আমাদেরকে অনেক কিছু জানতে সাহায্য করেন, আমি অভিভুত, তখন বলার আর কিছুই থাকে না, এমন কি প্রশংসা করার মত ভাষা হারিয়ে ফেলি,তাইএখন শুধু এটাই বলবো, হাজারো মৃতুর পথ অতিক্রম করে বেচে থাকুন।
    == দীনো ==

    • আপনার মতামতের জন্য ধন্যবাদ।
      jabber প্রোটোকলের মাধ্যমে ফেসবুক চ্যাট ব্যবহার করার পদ্ধতিটি আমারও জানা আছে। উবুন্টুতে আমি সেই পদ্ধতিতে ব্যবহার করছি। লেখাটি শেষ করা হয় নাই তাই পোস্ট করা হয় নাই। তবে এই পদ্ধতিতে চ্যাট চালু করা সহজ তাই এটি আগে পোস্ট করেছি।

  2. পিজিন এর কথা আগেই শুনেছি কিন্তু ব্যবহার করতে ভয় পাই কারণ এক্ষেত্রে তৃতীয় পক্ষের হাতে আমার পাসওয়ার্ড চলে যাবে। আমি এটাকে নিরাপদ ভাবি না। তবে আপনি যদি মনে করেন পিজিন কর্তৃপক্ষের কাছে পাসওয়ার্ড যাবার সম্ভাবনা নেই তবে একটু ব্যাখ্যা করে বুঝিয়ে বলেন।

    • তৃতীয় পক্ষের হাতে আমার পাসওয়ার্ড চলে যাওয়ার বিষয়টি ঠিক বুঝতে পারলাম না। ম্যাসেঞ্জার ব্যবহার করতে হলে সেখানে পাসওয়ার্ড লিখতে হবে। পাসওয়ার্ড ছাড়া ব্যবহার করার কোন উপায় আমার জানা নাই।
      আমি কয়েক বছর ধরে এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করছি। আমার পাসওয়ার্ড নিয়ে কোন সমস্যা হয় নাই। তবে পিজিনে পাসওয়ার্ড সংরক্ষন করা হয় একটি টেক্সট ফাইলে তাই সেটি খুব বেশি নিরাপদ না। আর এই সমস্যার সমাধান হল পাসওয়ার্ড সংরক্ষন না করা।

      আপনি সাধারণত কোন মেসেঞ্জার ব্যবহার করে থাকেন ?

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s